ডোমিঙ্গো চান না, তাই বিশ্বকাপে যাবেন না সুজন!

Feature Image

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মতো বড় আসর, অথচ বাংলাদেশ দলের সঙ্গে থাকছে না কোনো টিম লিডার বা ম্যানেজার? হ্যাঁ, এমনটাই ঘটতে যাচ্ছে। এবারের বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের সঙ্গে ‘অভিভাবক’ হিসেবে যাচ্ছেন না কেউ।

বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান জানিয়েছেন, সামনে বোর্ড নির্বাচন। এই সময়ে দলের সঙ্গে এক-দেড় মাস বাইরে থাকার ইচ্ছে নেই কারো।

এমনকি আকরাম খান নিজেও টিম লিডার হয়ে যেতে অনিচ্ছুক। তার কথা, ‘আমরা তো খেলা দেখতে যাব। তবে কোনো পদ-পদবি নিয়ে দলের সফরসঙ্গী হবো না এবার।’

বিপদের বন্ধু হিসেবে আসতে পারে খালেদ মাহমুদ সুজনের নাম। জাতীয় দলের যে কোনো আপদকালীন সময়ে সুজনকে সামনে পাওয়া গেছে। তিনি কি যেতে রাজি হবেন?

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, খালেদ মাহমুদ সুজনও এবার দলের সফরসঙ্গী হতে নারাজ। সপ্তাহখানেক আগে জাগো নিউজের সঙ্গে একান্ত আলাপে তিনি জানিয়েছেন, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে জাতীয় দলের কোনো দায়িত্ব নিতে চান না।

কারণটা কী? সুজন মুখ ফুটে না বললেও ভেতরের খবর হলো, হেড কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো আর পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসনের সাথে মত মিলছে না তার।

ক্রিকেটারদের সাথে সবসময়ই সুসম্পর্ক সুজনের। সবার প্রিয় ‘চাচা’ সুজন নিজের খেলোয়াড়ি ও কোচিং অভিজ্ঞতার আলোকে মাঝেমধ্যে এটা ওটা বলেন। প্রয়োজনীয় ও তাৎক্ষণিক পরামর্শ দেন। দু’ একসময় মাঠে বার্তাও পাঠান।

এই বিষয়গুলোই নাকি পছন্দ নয় দুই বিদেশি কোচ ডোমিঙ্গো আর গিবসনের। আর তা জেনেই সুজনও চলে গেছেন ব্যাকফুটে। যেহেতু টিম ম্যানেজম্যান্ট চাইছে না, যেচে উপকার করার দরকার কী! তাই সুজনকেও এবার বিশ্বকাপে দেখা যাবে কোনো দায়িত্বে।

আরো খবর »