যুবলীগ নেতার ডিজিটাল আইনে করা মামলায় সাংবাদিক গ্রেফতার

Feature Image

কুমারখালী(কুষ্টিয়া) প্রতিনিধিঃ কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি করা ছবি শেয়ার করার অভিযোগে যুবলীগ নেতার করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় ফরহাদ আমির টিপু (৫০) নামের এক সাংবাদিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আটক সাংবাদিক ফরহাদ আমির টিপু যায়যায়দিন পত্রিকার কুমারখালী উপজেলা প্রতিনিধি ও কুমারখালী রিপোর্টাস ইউনিটির সাধারন সম্পাদক।

কুমারখালী পৌর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফরহাদ ইমরান বাদী হয়ে ২০১৮ সালের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ১৯(১) ও ৩১ (২) ধারায় মঙ্গলবার কুমারখালী থানায় এই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান তালুকদার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, জাতীয় দৈনিক যায়যায়দিনের কুমারখালী প্রতিনিধি ও বাটিকামারা গ্রামের মৃত আমির উদ্দিনের ছেলে ফরহাদ আমির টিপু অন্যের ফেসবুকে আইডি থেকে করা প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি ও বিকৃত করা ছবি তার নিজ আইডি থেকে শেয়ার করেন। এ ব্যাপারে কুমারখালী পৌর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফরহাদ ইমরান বাদী হয়ে কুমারখালী থানায় মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় ফরহাদ আমির টিপুকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

আটক সাংবাদিক ফরহাস আমির টিপু ও তার পরিবার সূত্রে জানা গেছে, ১৪ অক্টোবর সন্ধ্যায় যায়যায়দিন পত্রিকার সাংবাদিক ফরহাদ আমির টিপু বাসাতে মোবাইল ফোন রেখে মার্কেটের নিচতলায় অবস্থান করাকালীন সময়ে তার ছেলে কবির(৭) মোবাইলটি ব্যবহার করার সময় ফেইসবুক থেকে একটি পোস্ট অসচেতনার বসে শেয়ার করে ফেলে। পরবর্তীতে বিষয়টি জানার ১০/১৫ মিনিটের মধ্যেই পোস্টটি ডিলেট করা হয়। পরিবারের দাবী অসুস্থ্য সাংবাদিক ফরহাদ আমির টিপু যেহেতু বিষয়টি জানেই না, ৭ বছরের বাচ্চা ভূল বশতঃ পোস্টটি শেয়ার করে। এর পেক্ষিতে মঙ্গলবার সকালে থানাতে ডেকে তাকে আটক দেখানো হয়েছে। তারা আরো জানান আটক এই সাংবাদিক দীর্ঘদিন যাবত উচ্চ রক্তচাপ ও ডায়াবেটিসসহ বেশ কয়েকটি জটিল রোগে ভূগছেন।

প্রসঙ্গত, যে আইডি থেকে পোষ্টটি আপলোড করা হয়েছে মূল পোষ্টদাতাকে এই মামলায় আসামী না করায় সংবাদিকদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। উল্লেখ্য গত ১ বছরের কুমারখালী থানায় এই নিয়ে ৪টি তথ্য ও প্রযুক্তি আইনে মামলা দায়ের হয়েছে।

আরো খবর »