আরেক দফা বাড়ছে ভোজ্য তেলের দাম

Feature Image

ঢাকা: বিশ্ব বাজারের ভোজ্য তেলের দাম বাড়ার কারণ দেখিয়ে আবারও প্রতি লিটারে আট টাকা দাম বাড়ানোর প্রস্তাব করেছে এ খাতের ব্যবসায়ীরা। আগামী শনিবার থেকে নতুন দাম কার্যকরও করতে চান তাঁরা। এই বিষয়ে আজ বৃহস্পতিবার ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠকে বসবে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন সম্প্রতি বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে সয়াবিন ও পাম তেলের দাম বৃদ্ধির জন্য চিঠি দিয়েছে। চিঠিতে আগামী ৮ জানুয়ারি থেকে দাম বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়। এই প্রেক্ষাপটে আজ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (আইআইটি) এ এইচ এম সফিকুজ্জামানের সভাপতিত্বে বৈঠক হবে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শফিকুজ্জামান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘তেলের দাম বাড়ানোর বিষয়ে রিফাইনাররা একটা প্রস্তাব দিয়েছে। আমরা এটা নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে ট্যারিফ কমিশনে পাঠিয়েছি। এই প্রেক্ষাপটে বৃহস্পতিবার ৩টায় মন্ত্রণালয়ে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠক হবে।’

এ বিষয়ে শীর্ষস্থানীয় ভোজ্য তেল বিপণনকারী সিটি গ্রুপের পরিচালক বিশ্বজিৎ সাহা গণমাধ্যমকে জানান, আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম বৃদ্ধির কারণে দেশের বাজারে প্রতি লিটার ভোজ্য তেলের দাম ১২ টাকা বৃদ্ধির একটি প্রস্তাব আমরা অনেক আগেই বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে দিয়েছিলাম। পরে কমিয়ে আট টাকা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে ট্যারিফ কমিশন বৈঠক ডেকেছে। বৈঠকে আলোচনা করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

বর্তমানে এক লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ১৬০ টাকায়। আট টাকা দাম বাড়িয়ে ১৬৮ টাকা দাম নির্ধারণের দাবি জানানো হয় চিঠিতে।

আরো খবর »